Logo
শিরোনাম :
পাংশায় প্রতিপক্ষের দুইদফায় হামলায় পিতা-পুত্র হাসপাতালে বাংলাদেশের ‘অভাবনীয়’ সাফল্যের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব মানিকগঞ্জে ব্যস্ত সময় পার করছে ৫ শতাধিক ঢাক- ঢোল তৈরির কারিগররা ঘিওরের বড়টিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটির ৪টি পদ শূণ্য ।শত শত রোগীরা চিকিৎসা বঞ্চিত দৌলতপুরে ৮ ইউনিয়নে নির্বাচনী হাওয়া বইছে। প্রার্থীদের মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাপ । শনিবার থেকে বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাবে করোনা পরীক্ষা শুরু জাতিসংঘের উচ্চপর্যায়ের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবসনে আন্তর্জাতিক শক্তির নিষ্ক্রিয়তায় মর্মাহত বাংলাদেশ পাংশায় যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উদ্যোগে মহিলাদের ৭দিন ব্যাপী হস্তশিল্প প্রশিক্ষণের উদ্বোধন পাংশায় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ২১০টি অনিয়মিত পত্রিকা বাতিলে তালিকা করা হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী
নোটিশ :
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয় ।

মানুষের ভালোবাসা নিয়ে নাংলা ইউনিয়নকে একটি আদর্শ-মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো

রিপোর্টার / ২৫৮ বার
আপডেটের সময় : সোমবার, ৯ আগস্ট, ২০২১

জামালপুর প্রতিনিধি:০৯ আগস্ট-২০২১,সোমবার।
জামালপুর জেলার মেলান্দহ উপজেলার ৪নং নাংলা ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের ভালোবাসা নিয়ে একটি আদর্শ ডিজিটাল মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলী স্বেচ্ছাসেবকলীগ, মেলান্দহ উপজেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি, বাংলাদেশ বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৃতীয় কর্মচারী পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও প্রধান সমন্বয়ক বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চল, সাবেক ছাত্রনেতা এস.এম.এ হান্নান দেওয়ানী। তিনি ছাত্রজীবন থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ তার হৃদয়ে লালন করে আসছেন। তার পিতা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের তৎকালীন বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ছিলেন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর (তৎকালীন আওয়ামী মুসলিমলীগ) বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন। ১৯৫২ইং সালের ভাষা আন্দোলনের সক্রিয় কর্মী ছিলেন এবং ১৯৫৪ইং সনের তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সাধারণ নির্বাচন প্রাককালে যুক্তফন্ট সরকার কর্তৃক হামলা ও মামলার স্বীকার হয়ে জামালপুর মহকুমা তথা জেলার মধ্যে ১৭(সতের নং) আসামী হিসাবে তালিকা বদ্ধ করা হয়েছিল। ১৯৬০ ও ১৯৬২ ইং সালের শিক্ষা আন্দোলন, ১৯৬৬ সালের ৬য় দফা আন্দোলন, ১৯৬৯ ইং সালের গণঅভ্যুত্থান, ১৯৭০সালের সাধারণ নির্বাচনসহ, ১৯৭১ ইং সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করার জন্য সক্রিয় অবদান রেখেছিলেন এবং ১৯৭৫ইং সালের ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ তার সকল পরিবারের সকল সদস্যদের হত্যার বিচারের দাবিতে মিছিল ও সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেছিলেন । ০৩রা নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে জেল হত্যার প্রতিবাদে মিছিল সংগ্রামে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন। তৎকালীন চাকুরী কালীন সময়ে আওয়ামী পন্থি বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম ছিলেন। বারং বার নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক হিসাবে মনোনিত হয়ে পুরস্কার প্রাপ্ত হয়েছেন। এমনকি মেলান্দহ মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মডেল হিসাবে নামকরণের জন্য অগ্রণী ভূমিকা পালন করার জন্য প্রশিক্ষনসহ সনদ প্রাপ্ত হন। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উপজেলা, জেলা ও কেন্দ্রীয় কমিটির বিভিন্ন গুরুত্ব পালন করে সততা অর্জনে স্বাক্ষর রেখেছেন। সামাজিক, শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত থেকে কাজ করেছেন। এস.এম.এ হান্নান দেওয়ানী বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিক হিসাবে লালিত হয়ে ১৯৮৬-১৯৮৭ ইং সালে মাত্র ০৯-১০ বছর বয়স থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষারত অবস্থায় স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন সংগ্রামের মিছিলে অসংখ্যাবার যোগদান করেছেন। ১৯৯০ থেকে ১৯৯৩ ইং সালে ০৪নং নাংলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, ১৯৯৪ থেকে ১৯৯৬ ইং সালে মেলান্দহ সরকারী কলেজের বাণিজ্য শাখার সভাপতি, এবং ছাত্র সংসদ না থাকায় ছাত্র সংসদে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং মেলান্দহ কলেজ শাখার ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
১৯৯৭ থেকে ১৯৯৯ ইং জামালপুর সরকারী আশেক মাহমুদ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণিজ্য শাখার সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন এবং কলেজ শাখা কমিটির আপ্যায়ন ও মিলনায়তন সম্পাদক ছিলেন। ১৯৯৮ ইং সালে মেলান্দহ পৌরসভা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সচিব নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৯৯ থেকে ২০০২ ইং সালে উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক এর দায়িত্বে ছিলেন। ২০১২ থেকে ২০১৫ ইং সালে ০৪নং নাংলা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সফল আহ্বায়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১১ থেকে ২০১৭ইং সালে মেলান্দহ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সিনিয়র সদস্য হিসাবে দায়িত্ব পালন অবস্থায় জেলা যুবলীগের কাউন্সিলর হিসাবে মনোনিত হন। ২০১২ থেকে ২০২০ইং পর্যন্ত ০৪নং নাংলা ইউনিয়নের ০৬নং ওর্য়াডের সম্মানিত সদস্য ছিলেন ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছা সেবকলীগ ২০১৭ থেকে অদ্যবধি পর্যন্ত মেলান্দহ উপজেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে বলিষ্ঠতার সহিত দায়িত্ব পালন করছেন এবং ২২শে জুলাই ২০২০ সাল থেকে অদ্যবধি বাংলাদেশ বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৃতীয় শ্রেণী কর্মচারী পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্বে আছেন এবং বৃহত্তর ময়সনসিংহ জেলা ও বিভাগের প্রধান সমন্বয়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি দেউলাবাড়ী প্রামাণিকপাড়া সামাজিক কবরস্থানের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন এবং ধর্র্মীয় বাংলাদেশ ইসলামি ফাউন্ডেশন কর্তৃক পরিচালিত মসজিদ ভিত্তিক নুরানী ও কুরআন শিক্ষা কেন্দ্রের সভাপতি হিসাবে দায়িত্বে রয়েছেন ও সাধারণ শিক্ষায় মেলান্দহ উপজেলার অর্ন্তগত ০২নং কুলিয়া ইউনিয়নের কুলিয়া গ্রামে উত্তর কুলিয়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে পরিচালনায় আছেন। আগামী ইউপি নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের একজন প্রার্থী হয়ে ৪নং নাংলা ইউনিয়নের বাসিন্দাদের সেবা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, আমি যদি দলীয় মনোননয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে পারি তাহলে এই ইউনিয়নকে উপজেলার মধ্যে একটি আদর্শ ইউনিয়ন ও একটি ডিজিটাল মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করবো।

 

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ

Theme Created By ThemesDealer.Com